মর্মনিজম

মর্মনিজম বা, লেটার ডে সেইন্টদের খ্রিস্ট ধর্মের একটি শাখা বলা চলে, তবে বেশীরভাগ খ্রিস্টানরাই তাদের খ্রিস্টান বলে স্বীকার করতে চান না। এর প্রতিষ্ঠাতা জোসেফ স্মিথ। এটিকে অনেক সময় বাহাই ধর্মের মত চতুর্থ আব্রাহামিক ধর্ম বলে ডাকা হয়। এরা কিন্তু নিজেদের খ্রিস্ট ধর্মের অনুসারি বলেই দাবি করে।

খ্রিস্ট ধর্মের প্রচলিত বিশ্বাসের সাথে মর্মনিজমের পার্থক্য

প্রধান পার্থক্য হচ্ছে এরা পবিত্র পিতা ঈশ্বরকে যিশুর মত রক্তমাংসের শরীরের বলে মনে করে। আরো কিছু পার্থক্য পয়েন্ট আকারে তুলে ধরছি

  • ট্রিনিটির মাধ্যমে এরা একজন স্রষ্টাকে বুঝায় না, তিনজনকেই বুঝায়। তাদের বিশ্বাস অনুযায়ী আরো হাজার রকম ঈশ্বর আছে যা, বহু ঈশ্বরবাদী ধারণার সাথেই বেশী সংগতিপূর্ণ
  • তাদের মতে মানুষও ঈশ্বরত্ব লাভ করতে পারে
  • যিশু প্রথমে স্বর্গীয় পিতা এবং স্বর্গীয় মাতার স্বর্গীয় পুত্র ছিল। পরে তিনি মানুষ হিসেবে মেরীর গর্ভে জন্মগ্রহণ করেন
  • মানুষ মৃত্যুর পরে তার বিশ্বাস অনুযায়ী তিন ধরণের স্বর্গে যাবে, সবচেয়ে খারাপ মানুষেরা যাবে নরকে
  • এডামের স্বর্গ থেকে চলে আসার ঘটনাকে তারা সৎ কাজ বলে মনে করে। এর মাধ্যমেই ঈশ্বরের উদ্দেশ্য পূর্ণ হয়েছে

অন্যান্য বিশ্বাসগুলোতে তারা মোটামুটি অন্যান্য খ্রিস্টানদের মতই। ১৮২০ সালে জোসেফ স্মিথের প্রচারিত এই ধর্মটি পরে বেশ জনপ্রিয়তাও পেয়েছে। এরা দাবি করে এরাই মূলত খ্রিস্ট ধর্মের মূল বিশ্বাসে ফিরে গেছে।

লেখাটির বেশীরবভাগ তথ্যই উইকিপিডিয়া এবং অন্য একটি ওয়েবসাইট থেকে সংগ্রহ করা। লেখাটি নিয়ে আপনাদের কোন পরামর্শ থাকলে সেটি যুক্ত করতে পারেন

তথ্যসূত্রঃ 

Difference Between Mormonism and Biblical Christianity

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *